১৭৮ জন ব্যবসায়ী সিআইপি কার্ড পে‌লেন

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় রপ্তানি বাণিজ্যে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় ১৭৮ ব্যবসায়ীকে বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি (সিআইপি-রফতানি) কার্ড দিলেন।

প্রিন্ট
বাণিজ্য মন্ত্রণালয় রপ্তানি বাণিজ্যে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় ১৭৮ ব্যবসায়ীকে বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি (সিআইপি-রফতানি) কার্ড দিলেন।

রাজধানীর রেডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনে  সোমবার বিকা‌লে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ নির্বাচিত ব্যবসায়ীদের হাতে সিআইপি কার্ড তুলে দেন। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো-ইপিবি এ অনুষ্ঠান আয়োজন করে।

১৯টি পণ্যখাতে ১৩৬ রপ্তানিকারক এবং পদাধিকারবলে ৪২ ব্যবসায়ী নেতাকে সিআইপি কার্ড দিয়ে সম্মানিত করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। ২০১৫ সালে রপ্তানি বাণিজ্য ও অর্থনীতিতে অবদানের জন্য তাদের এই কার্ড দেয়া হয়।

সিআইপিরা বিমানবন্দরে ভিআইপি লাউঞ্জ-২ ব্যবহারের সুবিধা পাবেন। সিআইপি ব্যক্তিদের স্ত্রী, পুত্র, কন্যা ও নিজের চিকিৎসার জন্য সরকারি হাসপাতালে কেবিন সুবিধার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবেন।

২০১৫ সালে মোট ১৯টি খাতের ব্যবসায়ীদের কার্ড প্রদান করা হয়। এর মধ্যে রয়েছে- কাঁচাপাট, পাটজাত দ্রব্য, চামড়াজাত দ্রব্য, হিমায়িত খাদ্য, ওভেন গার্মেন্টস, কৃষিজাত পণ্য, এগ্রোপ্রসেসিং, ফার্মাসিউটিক্যালস, হস্তশিল্পজাতদ্রব্য, প্লাস্টিকজাত পণ্য, ওভেন ও নিটওয়্যার পোশাক, টেক্সটাইলসহ বিভিন্ন রফতানির পণ্য।

সরকারি এক গেজেটের তথ্য অনুযায়ী, সিআইপি হিসেবে নির্বাচিত ব্যবসায়ীরা সচিবালয়ে প্রবেশে পাস, গাড়ির স্টিকার, জাতীয় অনুষ্ঠান ও সিটি করপোরেশনের নাগরিক সংবর্ধনায় আমন্ত্রণ পাবেন। বিমান, সড়ক, রেলপথ ও জলপথে সরকারি যানবাহনে আসন সংরক্ষণে অগ্রাধিকার থাকবে। এছাড়া বিভিন্ন জাতীয় অনুষ্ঠান ও মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন আয়োজিত নাগরিক সংবর্ধনায় আমন্ত্রণ পাবেন। একইসঙ্গে সিআইপিদের জন্য ব্যবসায়ী সংক্রান্ত কাজে বিদেশ ভ্রমণের ক্ষেত্রে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ভিসা প্রাপ্তির জন্য সংশ্লিষ্ট দূতাবাসকে উদ্দেশ্য করে ‘লেটার অব ইনট্রোডাকশন’ ইস্যু করবে।

রফতানি খাতে পাটপণ্য ক্যাটাগরিতে সিআইপি হয়েছেন হাসান আহমেদ, নুরুল ইসলাম, সেলিম রেজা, শায়লা ফারুক ও আকুনজি মোহাম্মদ হারুনার রশীদ, শেখ নাসির উদ্দিন, নাজমুল হক, মাহমুদুল হক, আবুল বাসার খান, হুমায়ূন কবির, শেখ ফারুক হোসেন ও লোকমান হোসেন। চামড়া খাতে আবদুল মাজেদ, শেখ মোমিন উদ্দিন, সাইফুল ইসলাম, জিয়াউর রহমান, জয়নাল আবেদিন মজুমদার ও নাজমুল হাসান এবং হিমায়িত খাদ্য রফতানিতে মুছা মিয়া, তৌহিদুর রহমান, মাসুদুর রহমান, মিয়া মোহাম্মদ আক্তারুজ্জামান, মিয়া মোহাম্মদ আবদুস সালাম, হাবিব উল্যাহ খান ও আবদুর রউফ চৌধুরী সিআইপি মনোনীত হয়েছেন।

ওভেন পোশাক খাতে তানভীর আহমেদ, শরীফ জহীর, আহসান কবির খান, আলী আজিম খান, মুজিবুর রহমান, আরশাদ জামাল, তানভীর আহমেদ, আব্দুস সালাম মুর্শেদী, মোস্তাজিরুল শোভন ইসলাম, আজিজুল ইসলাম, আক্কাস উদ্দিন মোল্লা, মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম, ওয়াসিম রহমান, ফেরদৌস পারভেজ বিভন, আবু বকর সিদ্দিক খান, ইতেমাদ উদ দৌলাহ, মিরান আলী ও সৈয়দ নুরুল ইসলাম এবং নিট পোশাক খাতে গোলাম মুস্তফা, গাওহার সিরাজ জামিল, কানিজ ফাতেমা জেরিন, নাজিম উদ্দিন আহমেদ, মহিউদ্দিন ফারুকী, মাসুদুজ্জামান, অমল পোদ্দার, এ.এইচ. আসলাম সানী, নাবিল উদ দৌলাহ, কামাল উদ্দিন, এ.কে.এম. বদিউল আলম, আসিফ আশরাফ, এম.এ. জলিল অনন্ত, জসিম উদ্দিন আহমেদ, আব্দুল কাদির মোল্লা, আমির হামজা সরকার, মোহাম্মদ আলী তালুকদার, কামরুল আহসান, প্রীতি পোদ্দার, শাহাদাত হোসেন, বোরহান উদ্দিন, কানিজ ফাতিমা, সাফিনা রহমান, হুমায়ন কবির চৌধুরী, গোলাম মোস্তফা, নুরুল আলম চৌধুরী, রানা শফিউল্লাহ, অঞ্জন শেখর দাশ, মোজাফফর হোসেন, মোখলেছুর রহমান, আবদুল কাদের, নাফিস সিকদার, সাকের আহমেদ, মহিউদ্দিন চৌধুরী, খলিলুর রহমান, সুলতানা জাহান, শামসুজ্জামান, আহমেদ আরিফ বিল্লাহ, এ.বি.এম সামছুদ্দিন, শামীম রেজা ও জাহাঙ্গীর আলম খান সিআইপি হয়েছেন। সিরামিক পণ্যে আফরোজা খানম, প্লাস্টিক পণ্যে রথীন্দ্রনাথ পাল ও জসিম উদ্দিন, কম্পিউটার সফটওয়্যারে এএসএম মহিউদ্দিন মোনেম, ওষুধ খাতে স্যামুয়েল এস চৌধুরী, আব্দুল মুক্তাদির ও নাজমুল হাসান এবং হস্তশিল্পে সফিকুল আলম সেলিম, কৃষি খাতে মোহাম্মদ মনসুর, শেখ আবদুল কাদের, গোবিন্দ চন্দ্র সাহা, গকুল চন্দ্র সাহা, তাফহীম আল-আজমী, শাহীন মনসুর, শাহাব উদ্দিন ও সেলিনা কাদের, কৃষি প্রক্রিয়াজাত পণ্যে ওমর ফারুক ও হারুনুর রশিদ, টেক্সটাইল খাতে শাহ শহীদুল আলম, মুহাম্মদ মোহসিন, আনোয়ার হোসেন, আব্দুছ ছামাদ মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম নোমান, কুতুব উদ্দিন আহমেদ, সাখাওয়াত হোসেন, সামস মাহমুদ, আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ জুবায়ের, আবদুল্লাহ আল মাহমুদ, আবদুল ওয়াহেদ, আব্দুর রাজ্জাক সাত্তার ও আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ জাবের সিআইপি মর্যাদা পেয়েছেন।

বিবিধ খাতে পেয়েছেন আব্দুল মমিন মন্ডল, মীর নাসির হোসেন, কেএম রেজাউল হাসানাত, আব্দুল আউয়াল, ফজলুর রহমান, সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম, রাকিবুল কবির, মনির হোসেন, বজলুর রহমান, মমতাজ উদ্দিন মন্ডল, রঞ্জন দাসগুপ্ত, গাজী আবুল হাসেম, মোহাম্মদ হেলাল মিয়া, সহিদ উদ্দিন আলমগীর, আব্দুর রাজ্জাক সাত্তার, নূর-ই ইয়াছমিন ফাতেমা, আব্দুল হাই সরকার, সালাহউদ্দিন আলমগীর, তানভীর খান ও মোহাম্মদ আনিসুর রাজ্জাক।