২০১৯ সালে হজ কার্যক্রমে অনুমোদিত এজেন্সির তালিকা প্রকাশ

0
335
প্রিন্ট

চলতি বছর প্রাথমিক পর্যায়ে ৭৭৪টি এজেন্সিকে হজ কার্যক্রমে অংশ নিতে অনুমোদন দিয়েছে সরকার। ২০১৯ সালে হজ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য প্রথম পর্যায়ে অনুমোদিত হজ এজেন্সির তালিকা প্রকাশ করেছে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

যে সব হজ এজেন্সি এখনও পর্যন্ত কাগজপত্রাদি মন্ত্রণালয়ে দাখিল করেনি এবং ইতোপূর্বে বিভিন্ন অভিযোগে শাস্তি অথবা জরিমানা পাওয়া এজেন্সিগুগুলোর তালিকা প্রথম পর্যায়ে প্রকাশ করা সম্ভব হয়নি বলেও জানিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। তাদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত অচিরেই নেওয়া হবে জানিয়েছেন মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা।

সৌদি আরবের সঙ্গে হজচুক্তি অনুযায়ী, এবার বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজ করতে পারবেন। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৭ হাজার ১৯৮ জন ও অবশিষ্ট ১ লাখ ২০ হাজার জন বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ করার সুযোগ পাবেন।

চলতি বছরও সরকারি ব্যবস্থাপনায় দুটি প্যাকেজের মাধ্যমে হজ পালনের বিধান রেখে সোমবার হজ প্যাকেজ অনুমোদন দিয়েছে হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব)। এবার হজ পালনে প্যাকেজ-১এ ৩ লাখ ৯৭ হাজার ৯২৯ এবং প্যাকেজ-২এ ৩ লাখ ৩১ হাজার ৩৫৯ টাকা খরচ করতে হবে। কোনো হজ এজেন্সি সর্বনিম্ন প্যাকেজের চেয়ে কম টাকায় কাউকে হজে নিতে পারবে না।

তারিখ নির্ধারণ করা না হলেও শিগগিরই হজযাত্রীদের নিবন্ধন শুরু হবে বলে জানিয়েছেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা । সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৬ হাজার ৭৩ ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৩ লাখ ৫২ হাজার ২৯২ ক্রমিক পর্যন্ত প্রাক-নিবন্ধিত ব্যক্তিরা হজে যেতে নিবন্ধন করতে পারবেন।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ২০১৯ সালের ২১ আগস্ট (৯ জিলহ্জ) পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে