টাকা উত্তলনে এটিএম ব্যবহারে সাবধান!

0
240
প্রিন্ট

এটিএমে টাকা লুটের ঘটনা প্রায়ই শোনা যায়। তাই কিছু কৌশল অবলম্বন করে রক্ষা করতে পারেন ব্যাংকে রক্ষিত আপনার কষ্টে অর্জিত টাকা। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতে বাংলাদেশেও এটিএম কার্ডের মাধ্যমে বিপুল অঙ্কের টাকা লেনদেন হয়। টাকা উত্তলনের সময় কার্ডের গোপন পিন চুরি করে সেখান থেকে তথ্য নিয়ে টাকা লুটের ঘটনা ঘটছে। কার্ড রিডার স্লটে বিভিন্ন ডিভাইস স্থাপন  করা থাকে যাতে এটিএম কার্ডের ম্যাগনেটিক স্ট্রিপ থেকে যাবতীয় তথ্যাদি চুরি করা যায়।

সাবধান হতে নিচের কিছু কৌশল অবলম্বন করুন:

এটিএম বুথের কার্ড স্লটটি কিছুটা ফাঁপা অথবা ঠিক অবস্থানে আছে কিনা তা পরীক্ষা করে নিন। অনেক সময় আসল কার্ড স্লটের ওপরে বিকল্প কার্ড রিডার স্লট যুক্ত করে ডেবিট কার্ডের যাবতীয় তথ্য চুরি করা হয়। অনেক সময় কার্ড স্লটে ‘লেবানিজ লুপ’ থাকে। লেবানিজ লুপ হল হুলসমেত ছোট্ট প্লাস্টিক ডিভাইস যা কার্ডটিকে মেশিনে আটকে রাখে।

মেশিনের ডিসপ্লেতে অনেক সময় নকল ফ্রন্ট কভার যুক্ত করে রাখে প্রতারকরা। অনেকের পক্ষে তা ধরা সম্ভব হয় না। ফ্রন্ট কভারে ভুল বার্তা দিয়ে গ্রাহকদের পিন এবং টাকা চুরি করে থাকে প্রতারক চক্র।

আসল কিপ্যাডের ওপরে ভুয়া কিপ্যাড লাগানো থাকে। টাচ করার সময় যদি কিপ্যাড স্পঞ্জের মতো বা ঢিলেঢালা মনে হয় তবে পিন দেয়া থেকে বিরত থাকুন।

মেশিনে অনেক সময় ক্ষুদ্র ক্যামেরা লুকিয়ে রাখা হয়। আবার এটিএম বুথের ছাদেও ক্যামেরা লুকিয়ে রাখা হয়। ক্যামেরার সাহায্যে সহজে পিন চুরি করা যায়। তাই কিপ্যাডে পিন দেওয়ার সময় অপর হাত দিয়ে কিপ্যাড ঢেকে রাখুন।