বাংলাদেশের সঙ্গে মুক্তবাণিজ্য চুক্তিতে যুক্ত হচ্ছে নেপাল

0
256
প্রিন্ট

বাংলাদেশের সঙ্গে মুক্তবাণিজ্য করতে আগ্রহী হয়ে উঠেছে নেপাল। অন্যদিকে বাংলাদেশের সঙ্গে চীন ও শ্রীলংকা মুক্তবাণিজ্য চুক্তি আগ্রহ দেখালেও এখন তারা আর আগ্রহ দেখাচ্ছে না।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, চীন থেকে সবচেয়ে বেশি পণ্য আমদানি করে বাংলাদেশ। চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য ১০ গুণেরও বেশি। বাংলাদেশ সাড়ে ৬০০ মিলিয়ন ডলারের পণ্য চীনে রফতানি করে। তার বিপরীতে চীন থেকে আমদানি করে প্রায় ৮ বিলিয়ন ডলারের পণ্য। চীন ইতিমধ্যেই বাংলাদেশি ৫০০ পণ্যে শুল্কমুক্ত সুবিধা দিয়েছে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, চীন নয়, আসলে আমাদের রফতানি পণ্য খূবই কম হওয়ায় আমরাই চীনের সঙ্গে মুক্তবাণিজ্য চুক্তি থেকে সরে আসার চেষ্টা করছি। শুল্কমুক্ত ৫০০ পণ্যই এখনো চীনে পাঠাতে পারিনি। যদি চীনের সঙ্গে মুক্তবাণিজ্য চুক্তি হয় তবে চীনের পণ্যে বাংলাদেশ সয়লাব হবে, ফলে মার খাবে বাংলাদেশী পণ্য। তাদের সঙ্গে এসব বিষয় নিয়ে কয়েক দফা আলোচনার পরে তারাও এখন কিছুটা পিছু হটেছে।

শ্রীলংকার বিষয়েও কর্মকর্তা বলেন. শ্রীলংকার সঙ্গে মুক্তবাণিজ্য নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এখন আর তারা আগ্রহ দেখাচ্ছে না। ধরে নিচ্ছি তারা আর আমাদের সঙ্গে মুক্তবাণিজ্য চুক্তি করতে আগ্রহী নয়।

এদিকে নতুন করে মুক্তবাণিজ্য চুক্তি করতে আগ্রহ দেখিয়েছে নেপাল। নেপালের সঙ্গে আামাদের বাণিজ্য প্রায় ২০০ মিলিয়ন ডলারের। নেপালে বাংলাদেশি পণ্যে বিশেষ করে ইলেকট্রনিক্স যন্ত্রপাতি ও গার্মেন্টের চাহিদা বাড়ছে। সুতরাং তাদের সঙ্গে মুক্তবাণিজ্য চুক্তি করলে বাংলাদেশ লাভবান হবে।