বিরক্ত হয়ে ফেসবুককে বিদায় জানালেন ন্যান্সি

0
86
প্রিন্ট

কোন ব্যক্তিগত বিষয় আর ব্যক্তিগত থাকছে না। সব পাবলিক হয়ে যাচ্ছে। তারপর আবার মানুষের আজে-বাজে কমেন্ট। কথাগুলো বলছিলেন বাংলা গানের জনপ্রিয় শিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি। অসংখ্য ফেইক আইডি, বাজে বাজে মন্তব্য ইত্যাদি তাকে মানসিকভাবেও বিব্রত করছে। এই জন্যই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুককে বিদায় জানালেন ন্যান্সি।

ন্যান্সি বলেন, ফেসবুকে কে বা কাহার আমার নামে অসংখ্য ফেইক আইডি তৈরি করেছে। যেগুলোর জন্য আমাকে বিভিন্ন সময় বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে হয়। দেখা যায় অনেকে সেই ফেইক আইডির সঙ্গে চ্যাট করে। দেখা হলে বলে, আমাকে চেনেন না আাপা আমি ফেসবুকে আপনার সঙ্গে চ্যাট করি। বিষয়গুলোতে বেশ বিব্রত করে আমাকে।

ন্যান্সি আরও বলেন, ফেসবুকে অ্যাকাউন্টের পাশাপাশি আমার একটা পেজও ছিলো। মাঝে মধ্যে এতে লাইভেও আসতাম। পরে দেখা যায় লাইভের সেই ভিডিওগুলো নিয়ে অন্যরা এডিট করে কে বা কারা ইউটিউবে আপলোড করে দেয়। আমার নিজের আইডিতে একান্ত ব্যাক্তিগত কিছু ছবি ফেন্ডস মুড করে আপলোড করলেও সেগুলো ছড়িয়ে দিচ্ছে। ব্যাক্তিগত সেই ছবিগুলো নিয়ে আমার অনুমতি না নিয়েই নিউজ বানাচ্ছে অনেকেই। আমি চাচ্ছি না যে ছবিগুলো ফ্রেন্ডছাড়া বাইরের কেউ দেখুক কিন্তু তা হচ্ছে না সবকিছু প্রকাশ করে দিচ্ছে। এগুলো এখন আর দেখতে ভালো লাগে না। এই সব থেকে বাঁচতেই ফেসবুককে বিদায় জানালাম। এখন থেকে ফেসবুকে আমার কোন অ্যাকাউন্ট থাকবে না। যেগুলো পাবেন সেগুলোর সব ফেইক। আশা করি আমার ভক্তরা বিষয়টি বুঝতে পারবেন। তবে যদি কখনও নিরাপদ মনে করি তখন ফেসবুকে আসতেও পারি।

ন্যান্সি জানায়, বরং গান ও পরিবারকে সময় দেয়াটাই এখন তার জন্য উত্তম বলে মনে করেন। কারণ তার মেয়েরা এখন বড় হচ্ছে। তাদেরকে সময় দেওয়া, তাদের সুষ্ঠুভাবে বেড়ে উঠার পরিবেশ তৈরি করা, মানুষের মত মানুষ রূপে গড়ে তোলাই এখন সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন।

ফেইক অ্যাকাউন্ট থেকে সবাইকে সাবধান থাকতে আহবান করেছেন ন্যান্সি।