বহুতল ভবন নির্মাণের অনুমোদন পেতে ওয়ানস্টপ সার্ভিস চালু

0
55
প্রিন্ট

রাজধানীতে বহুতল ভবন নির্মাণে নকশার অনুমোদন পেতে বিভিন্ন দপ্তরের  পদে পদে দুর্ভোগ পোহাতে হয় ভবন নির্মাতাদের। ভবন নির্মাতাদের এই দুর্ভোগ কমানোর জন্য মার্চের মধ্যেই ওয়ানস্টপ সার্ভিস চালুর উদ্যোগ নিয়েছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)। এই ওয়ানস্টপ সার্ভিসের মাধ্যমে ভবন নির্মাতারা আবেদনের ১৫ দিনের মধ্যে ভবনের নকশার অনুমোদন পাবেন বলে  আশ্বাসও দিয়েছেন  গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

উল্লেখ্য যে, রাজধানীতে একটি ৪ থেকে ৫ তলাবিশিষ্ট ভবন তৈরি করতে নকশার অনুমোদন পেতেই সময় লাগে প্রায় এক থেকে দুই বছর। এছাড়া রাজউক, সিটি করপোরেশন, ওয়াসা, বিদ্যুৎ বিভাগ, তিতাসসহ বিভিন্ন দপ্তরের অনুমতিতো আছেই।

আর ইহা যদি ১০ তলা  বা তার চেয়েও উঁচু ভবন হয় তাহলে দরকার  আরো ছয়টি সংস্থার অনুমোদন- যেতে হয় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এবং বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের দপ্তরে। এখানেই শেষ নয়, নিতে হবে পরিবেশ অধিদপ্তর, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ, ঢাকা যানবাহন সমন্বয় বোর্ডের ছাড়পত্র। এমন কি অনুমতি নিতে হয় কেপিআই বোর্ডেরও। এই সমস্ত দপ্তরে দৌড়া দৌড়ি ছাড়াও পোহাতে হয় বিভিন্ন দুর্ভোগ, সঙ্গে বাড়ে ভবন তৈরীর খরচও।

এই সমস্ত দপ্তরের ছাড়পত্র সংগ্রহ করতে যত দেরি হবে ঠিক ততটা দেরিতে পাওয়া যাবে ভবনের নকশার অনুমোদন। এ নিয়ে কথা  হয়েছে আবাসন ব্যবসা মালিকদের সংগঠন রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড হাউজিং সোসাইটি অব বাংলাদেশ রিহ্যাবের প্রতিনিধির সঙ্গে।

খোদ গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রীও এসব জটিলতার কথা স্বীকার করে বলেন, দুর্ভোগ কমাতে সব সংস্থার অফিস এক ছাদের নিচে আনা হচ্ছে। আর সেই সুবিধাটা পাওয়া যাবে রাজউক ভবনে। দ্রুত অনলাইন সেবা চালু হলে ওয়ানস্টপ সার্ভিস বাস্তবায়নও সহজ হবে। এই উদ্দোগ্যে রাজউকের সঙ্গে যুক্ত সব সংস্থার দ্রুত সমন্বয় নিশ্চিত করা হবে। পাশাপাশি অনলাইনে সেবা চালু হলে রোধ হবে অনিয়ম।