মিথ্যা তথ্য দিয়ে হজযাত্রী নিবন্ধন সনাক্ত করতে এবার অনলাইনে যাচাই

0
90
প্রিন্ট

নিবন্ধিত হজযাত্রীদের পাসপোর্ট এখন থেকে অনলাইনেই যাচাই বাছাই করা হবে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীন ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টারের (এনটিএমসি) মাধ্যমে এই যাচাই প্রক্রিয়ার কাজ করা হবে জানান, প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জিয়াউল আহসান। ফলে খুব সহজেই অল্প সময়ে নিবন্ধিত পাসপোটের তথ্য সংগ্রহ করা ও ভিসা প্রক্রিয়ার কাজ করতে পারবে ধর্ম মন্ত্রণালয়। এতে মিথ্যা তথ্য দিয়ে হজযাত্রী নিবন্ধন সহজেই সনাক্ত যাবে। উল্লেখ্য যে, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধিত হজযাত্রীদের পাসপোর্টের সত্যতা যাচাইয়ের প্রক্রিয়াটি ম্যানুয়ালি হয়ে থাকে যা অনেক সময় সাপেক্ষ।

এ বিষয়ে গত ১৩ নভেম্বর ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টার (এনটিএমসি) ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সঙ্গে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের দ্বি-পাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

এ ক্ষেত্রে এনটিএমসি সেন্ট্রাল হাব হিসাবে ব্যবহৃত হবে। এনটিএমসিতে স্থাপিত মিডল সার্ভার এর মাধ্যমে ধর্ম মন্ত্রণালয় খুব সহজেই অল্প সময়ে নিবন্ধিত পাসপোটের তথ্য সংগ্রহ করা ও ভিসা প্রক্রিয়ার কাজ করতে পারবে।  এছাড়াও মিথ্যা তথ্য দিয়ে হজযাত্রী নিবন্ধন প্রক্রিয়া সহজেই চিহ্নিত করা যাবে এবং এতে বন্ধ হবে ভুয়া নিবন্ধন প্রক্রিয়া।

 প্রতি বছর সৌদি সরকারের সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের হজ চুক্তি হয়। নির্দিষ্ট কোটা অনুযায়ী  হজ ও ওমরাহ নীতিমালা অনুযায়ী  হজযাত্রীদের নিবন্ধন করা হয়।  অভিযোগ রয়েছে, প্রাক নিবন্ধনের সময় হজ এজেন্সিগুলো ভুয়া পাসপোর্ট নম্বর ব্যবহার করে ইচ্ছুক হজযাত্রীদের নিবন্ধন করে থাকে। ফলে প্রতিবছর হজ নিবন্ধনের বিপরীতে প্রায় চার-পাঁচ হাজার ভুয়া নিবন্ধন ধরা পড়ে।

উল্লেখ্য যে, ২০১৯ সালের হজ পালনের জন্য সরকারিভাবে ৫ হাজার ৫৭৪ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ২ লাখ ২ হাজার ৯০৯ জন  প্রাক-নিবন্ধন করেছেন। এ বছর  হজ রেজিস্ট্রেশনের সময় প্রতিদিন প্রায় ১০ হাজার ৫৯৭টি পাসপোর্ট নম্বর যাচাইয়ের প্রয়োজন হতে পারে।