উদ্বোধন হলো পাঁচ দিনব্যাপী রিহ্যাব ফেয়ার ২০১৯

0
152
প্রিন্ট

শুরু হলো পাঁচ দিনব্যাপী রিহ্যাব ফেয়ার ২০১৯। আজ সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের হল অব ফেম-এ ফেয়ারের উদ্বোধনী অধিবেশন অনুষ্ঠিত। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম, এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও রিহ্যাব এর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট নুরুন্নবী চৌধুরী (শাওন), এমপি। গেস্ট অব অনার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এর চেয়ারম্যান জনাব মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এনডিসি। অনুষ্ঠান শেষে ফিতা কেনে মন্ত্রী রিহ্যাব ফেয়ার ২০১৯ এর উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে আবাসন খাতের সমস্যা দুর করতে গৃহায়ন মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে একটি যৌথ কমিটি গঠনের প্রস্তাব করেন রিহ্যাব নেতৃবৃন্দ। মন্ত্রী যৌথ কমিটি গঠনের বিষয়ে সহযোগীতা করবেন বলে আশ্বাস দেন। অনুষ্ঠানে এনবিআর চেয়ারম্যান আবাসন ব্যবসার গুরুত্ব তুলে ধরে সৎ ব্যবসায়ীদের পাশে থাকার কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে রিহ্যাব প্রেসিডেন্ট আলমগীর শামসুল আলমিন বলেন, বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকাকে সু-পরিকল্পিত নগরায়নে রূপান্তরের পাশাপাশি নাগরিকদের মৌলিক চাহিদা আবাসন সমস্যা সমাধানে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে রিয়েল এস্টেট এ্যান্ড হাউজিং এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব)। রিহ্যাব সদস্যদের প্রথম ও প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে বাংলাদেশে ঝুঁকিমুক্ত, পরিবেশ বান্ধব একটি পরিকল্পিত নগর গড়ে তোলা। বর্তমান এবং পরবর্তী প্রজন্মের জন্য নিরাপদ আবাসের ব্যবস্থা করার লক্ষ্যকে সামনে রেখেই প্রায় তিন দশক ধরে সরকারের উন্নয়ন সহযোগী হিসাবে কাজ করছে রিহ্যাব সদস্যরা।

অনুষ্ঠানে নুরুন্নবী চৌধুরী (শাওন),এমপি অর্থনীতিতে আবাসন খাতের নানা অবদানের কথা তুলে ধরেন। এই রিহ্যাব ফেয়ার ক্রেতা ও বিক্রেতার মধ্যে মেল বন্ধন গড়ে দিবে বলে উল্লেখ করেন নুরুন্নবী চৌধুরী (শাওন),এমপি। ।
অনুষ্ঠানে রিহ্যাবের সহ সভাপতি (প্রথম) লিয়াকত আলী ভূইয়া, সহ সভাপতি কামাল মাহমুদ, রিহ্যাব পরিচালক ও ফেয়ার কমিটির চেয়ারম্যান মো: শাকিল কামাল চৌধুরী, সহ সভাপতি-২ মো: আনোয়ারুজ্জামান, সহ সভাপতি আবদুল কৈয়ুম চৌধুরী সহ রিহ্যাব এর অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

৫ দিনব্যাপী এ মেলা চলবে ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। মেলায় ২০২টি স্টল রয়েছে । মেলার কো-স্পন্সর হিসেবে অংশ নিয়েছে ৩০টি প্রতিষ্ঠান। এছাড়া ২০টি বিল্ডিং ম্যাটেরিয়ালস এবং ১৪টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নিয়েছে।
মেলা উপলক্ষে নানা উপহার সহ এককালীন মূল্য পরিশোধে ফ্ল্যাট ও প্লটে ছাড় দিয়েছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে মেলা প্রাঙ্গণ। মেলায় প্রবেশ মূল্য ৫০ টাকা। তবে ১০০ টাকার মাল্টিপল টিকেট দিয়ে যে কেউ ৫বার মেলায় প্রবেশ করতে পারবেন।

সকাল ১০ থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত ক্রেতা দর্শনার্থীরা প্রবেশ করতে পারবে। এন্ট্রি টিকিটের রাফ্রেল ড্র তে থাকছে আকর্ষণীয় মূল্যবান পুরস্কার। এ বছর মেলার শেষ দিন ১০ ফেব্রুয়ারি রাত ৯ঃ০০টায় রাফেল ড্র অনুষ্ঠিত হবে। এ বছর রাফেল ড্র এর ১ম পুরস্কার- ১টি প্রাইভেট কার, ২য় পুরস্কার একটি মোটর সাইকেল, ৩য় পুরস্কার ১টি ফ্রিজ, ৪র্থ পুরস্কার-১টি ৪৩ ইঞ্চি এলইডি টেলিভিশন, ৫ম পুরস্কার-১টি ওয়াসিং মেশিন এবং ৬ষ্ঠ পুরস্কার- ডিপ ফ্রিজ (১টি), ৭ম পুরস্কার- মোবাইল ফোন (১টি), ৮ম পুরস্কার- মোবাইল ফোন (১টি), ৯ম পুরস্কার- মাইক্রো ওভেন (১টি) এবং ১০ম পুরস্কার- এয়ার কুলার (১টি)।
এছাড়া মেলার প্রতিদিন প্রথম পুরস্কার ২ রাত ৩ দিনের হোটেল প্যাকেজ সহ কাপল এয়ার টিকিটে সিঙ্গাপুর ভ্রমন। দ্বিতীয় পুরস্কার ঢাকা-মালয়েশিয়া-ঢাকা ও তৃতীয় পুরস্কার হিসেবে থাকছে ঢাকা-ব্যাংকক-ঢাকা এর কাপল এয়ার টিকিট।

২০০১ সাল থেকে ঢাকায় রিহ্যাব হাউজিং ফেয়ার শুরু হয়। এছাড়া চট্টগ্রামে ১১ টি ফেয়ার সফল ভাবে সম্পন্ন করেছে রিহ্যাব। রিহ্যাব ২০০৪ সাল থেকে বিদেশে হাউজিং ফেয়ার আয়োজন করছে। এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ১২ টি, যুক্তরাজ্যে, দুবাই, ইতালীর রোম, কানাডা এবং সিডনী এবং কাতারে ১টি করে “রিহ্যাব হাউজিং ফেয়ার” সফল ভাবে সম্পন্ন হয়েছে। এই সকল ফেয়ার আয়োজনের মাধ্যমে রিহ্যাব দেশে ও বিদেশে গৃহায়ন শিল্পের বাজার সৃষ্টি এবং তা প্রসারের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখছে। অন্যদিকে প্রবাসী ক্রেতারা যেমন দেশে তাদের পছন্দের আবাসন খুঁজে পেয়েছে আবার এই ফেয়ারের মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রাও অর্জিত হচ্ছে। শুধু তাই নয়, দেশের অর্থনীতি সমৃদ্ধ করার পাশাপাশি গৃহায়ন শিল্প এবং লিংকেজ শিল্প বিকাশে অনন্য ভূমিকা পালন করে চলেছে।