প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়া হবে : প্রধানমন্ত্রী

0
182
প্রিন্ট

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এক বছরের মধ্যে প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিয়ে দেশকে আরো এগিয়ে নেওয়াই সরকারের লক্ষ্য। ২০২১ সালে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে এক অন্যরকম ও উন্নত বাংলাদেশের চিত্র তুলে ধরতে সরকার কাজ করছে।

আজ বুধবার (৬ ফেব্রুয়ারি) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী ১২টি উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন করেন গণভবন থেকে। এছাড়া, ৬টি বিদ্যুৎ কেন্দ্র ও ৯টি গ্রিড উপকেন্দ্র এবং সন্দ্বীপের বিদ্যুৎ সংযোগ উদ্বোধন করেন তিনি। চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড থেকে ১৬ কিলোমিটার দীর্ঘ সাবমেরিন কেবল (সাগরের তলদেশ দিয়ে যাওয়া বিদ্যুতের তার) স্থাপন করে বিদ্যুৎ ও ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দেওয়া হয় দেশের মূল ভুখণ্ড থেকে বিছিন্ন সন্দ্বীপের মানুষের কাছে।

উদ্বোধন শেষে প্রধানমন্ত্রী বলেন, উন্নত ‍ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে সরকার বদ্ধ পরিকর। বিদ্যুতের জন্য এখন আর গ্রাহকদের বিদ্যুৎ অফিসে ঘোরতে হয় না। বরং সংযোগ পৌঁছে যাচ্ছে গ্রাহকদের কাছে। ২০২০ সালের মধ্যে আরও বেশি উন্নয়ন ও ২০২১ সালে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে এক উন্নত বাংলাদেশকে দৃশ্যমান করতে কাজ চলছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘২০১৮-এর নির্বাচনে জনগণ আবারও আমাদের ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছে। আমরা জনগণের কাছে কৃতজ্ঞতা জানাই। তারা যে আস্থা ও বিশ্বাস রেখে আমাদের নির্বাচিত করেছেন সেটি সামনে রেখেই আমরা এগিয়ে যাব।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশের সার্বিক উন্নয়নে সবচাইতে যেটা বেশি প্রয়োজন সেটা হলো বিদ্যুৎ। আমরা মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছি। আর বিদ্যুতের উৎপাদনের মাধ্যমে প্রতিটি ঘরে আলো জ্বালবো। এটাই আমাদের লক্ষ্য।