অনিয়মের কারনে ১৭ হজ এজেন্সির ব্যাংক হিসাব স্থগিত

0
197
প্রিন্ট

ঢাকাসহ সারাদেশে ১৭টি হজ এজেন্সির সঙ্গে লেনদেন না করতে হজ সংশ্নিষ্ট ব্যাংকগুলোকে অনুরোধ জানিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। জানাযায়, বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগের কারনে ১৭টি হজ এজেন্সিকে শাস্তিসরূপ জরিমানা করা হয়েছিল, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তা পরিশোধ না করায় তাদের বিরুদ্ধে এই পদক্ষেপ নিয়েছে ধর্ম মন্ত্রনালয়। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এই অবস্থা বলবৎ থাকবে।

গত বুধবার ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব আব্দুল্লাহ আরিফ মোহাম্মদ স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ অনুরোধ জানানো হয়।

চিঠিতে বলা হয়, ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নিয়োগ করা ১৭টি হজ এজেন্সি নিজ নিজ হিসাব নম্বর থেকে হজ লাইসেন্সের জামানত বাবদ অর্থের এফডিআর জমা দিয়েছে। ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিবের অনুমোদন ছাড়া তা উত্তোলন করা যাবে না। ১৭টি হজ এজেন্সির বিভিন্ন অনিয়মের বিরুদ্ধে ‘জাতীয় হজ ও ওমরাহ নীতিমালা-২০১৮’  অনুযায়ী জামানত বাজেয়াপ্ত, লাইসেন্স বাতিল বা স্থগিত ও জরিমানা করা হয়। কিন্তু শাস্তি অনুযায়ী এসব এজেন্সি জরিমানা পরিশোধ করেনি।

যেসব ব্যাংকে এজেন্সিগুলো ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব বরাবরে জামানত বাবদ এফডিআর করেছে সেসব ব্যাংককে গত সপ্তাহেই চিঠি পাঠানো হয়েছে। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন বলেন, বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে যেসব হজ এজেন্সির বিরুদ্ধে জরিমানাসহ বিভিন্ন ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল তাদের মধ্যে এই ১৭ এজেন্সি জরিমানা পরিশোধ করেনি। ফলে তাদের সঙ্গে কোনো ধরনের লেনদেন না করতে সংশ্নিষ্ট ব্যাংকগুলোকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

ব্যাংক হিসাব স্থগিতকৃত হজ এজেন্সিগুলো হচ্ছে- চট্টগ্রামের আল আমানত ট্রাভেলস, ঢাকার আলহজ ট্রাভেল ট্রেড, ব্রাইট ট্রাভেলস, বুশরা ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস, আল বারী ট্রাভেলস ইন্টারন্যাশনাল, ক্লাব ট্রাভেল সার্ভিস, মেসার্স জামান এন্টারপ্রাইজ, মদিনা এয়ার ইন্টারন্যাশনাল এভিয়েশন, রয়েল তাইবা এভিয়েশন, এস আহমেদ ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলস, সাঈদ এয়ার ইন্টারন্যাশনাল, ইউরো এশিয়া ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস, সুহারাদা ওয়াহেদ এয়ার ট্রাভেলস, সুহাইল এয়ার ইন্টারন্যাশনাল, দ্য ম্যাক্সিম ট্রাভেলস এজেন্সি অ্যান্ড ট্যুরস, হাজী হাফেজ ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস এবং শাওবান এয়ার ট্রাভেলস।