হজযাত্রার প্রস্তুতিতে অনিয়ম, ৪৬ হজ এজেন্সিকে সতর্ক বার্তা

0
81
প্রিন্ট

চলতি হজ মৌসুমে হজযাত্রা শুরু হয়ে গেলেও এখনো অনেক হজযাত্রীর বাড়িভাড়া, ভিসা প্রসেসিং, পে-অর্ডার ও বিমানের টিকিট সংগ্রহ করেনি বেশ কিছু হজ এজেন্সি। এ ঘটনায় ৪৬ হজ এজেন্সিকে হজ ক্যাম্পে তলব করে কড়া বার্তা দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। একই সঙ্গে দ্রুততম সময়ে এয়ারলাইনসের টিকিট কিনতে নির্দেশনা দেওয়া হয়। গত শুক্রবার (১২ জুলাই) এসব এজেন্সিকে আশকোনা হজক্যাম্পে ডাকা হয়েছিল।

হজ মৌসুম শুরু হয়ে গেলেও এজেন্সিগুলো ঠিকমতো সব হজযাত্রীর বাড়িভাড়া সম্পন্ন করতে পারেনি। সেই সঙ্গে তারা কোনো কোনো হজযাত্রীর ভিসা প্রসেসিং ও বিমান টিকিটও সংগ্রহ করেনি। ফলে তাদের মাধ্যমে হজগমনেচ্ছুকদের মধ্যে দুশ্চিন্তা কাজ করছে।

এ প্রসঙ্গে আশকোনা হজ অফিসের পরিচালক (উপসচিব) মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘কোনো এজেন্সির গাফলতির কারণে যদি একজন হজযাত্রীও হজে যেতে না পারেন, তা হলে চড়া মাশুল দিতে হবে। তারা যত প্রভাবশালীবই হোক না কেন কোনোভাবেই ছাড় দেওয়া হবে না। আমরা চাই একজন হজযাত্রীও যেন বাদ না পড়েন।’

প্রতিবছরের মতো এবার যেন কোনো ধরনের অনিয়ম না হয় সে জন্য ধর্ম মন্ত্রণালয় কঠোর অবস্থানে রয়েছে। সামান্য অনিয়ম হলেও দায়ী এজেন্সিকে ছাড় দেওয়া হবে না।

যে ৪৬ হজ এজেন্সিকে সতর্ক করা হলো: এমএ ইন্টারন্যাশনাল লি., মোবালিং ট্রাভেলস, মক্কা মোক্কাররম ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলস, কম্বাইনড ট্রাভেলস ইন্টারন্যাশনাল লি., এয়ার স্টেশন ইন্টারন্যাশনাল, সার্ক ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস, ট্রাভেলন এয়ার সার্ভিসেস, আফনান এভিয়েশন, আবতাহি এয়ার ইন্টা. লি., এএইচবি ট্রাভেলস ইন্টারন্যাশনাল লি., আমাতুন এয়ার ট্রাভেলস সার্ভিসেস, অঞ্জন এয়ার ট্রাভেলস, আল-মারিয়া ট্রাভেলস, আল-মারসুস ইন্টারন্যাশনাল, বাংলাদেশ ডায়মন্ড হজ গ্রুপ, বর্ষা ওভারসিস, ভৈরব ট্রাভেলস, ব্রাইটন এয়ার সার্ভিসেস, ব্রডওয়ে ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলস, ধানসিঁড়ি ট্রাভেল এয়ার সার্ভিসেস, ফিউচার ওভারসিস, গালফ ট্রাভেলস, হোসাইন এয়ার সার্ভিসেস, জাবালে নুর ইন্টারন্যাশনাল, কেএসপি ট্রাভেলস, খান জাহান আলী হজ ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস, এমএস ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলস, মেসার্স মীর অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েটস ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলস, মার্ভেলাস এয়ার কিং, মেজাব ওয়াল্ড ওয়াইড সার্ভিসেস, ওয়েল ওভারসিস ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস, রিমি ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস, এসএম ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস, স্কাই ওয়ার্ল্ড ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস, সাউথ ইস্ট ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস, সাকসেস এয়ার সার্ভিস, সুপার এয়ার সার্ভিসেস প্রাইভেট লি., বেস্ট ফ্লাই ইন্টারন্যাশনাল, ইউনিয়ন টুরিজম সার্ভিসেস, রাব্বানি ওভারসিস এভিয়েশন, শেখ জালাল ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলস, ওহিয়া ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস, দারুল ইহসান হজ কাফেলা ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস, রহমানিয়া এয়ার ট্রাভেলস, আল-খিদমা ওভারসিস ও গাজী ট্যুরস ট্রাভেলস।

উল্লেখ্য, পবিত্র রমজানের আগেই গত ১৮ এপ্রিল বাংলাদেশি হজযাত্রীদের জন্য সৌদি আরবে বাড়িভাড়া সম্পন্ন করার নির্দেশ দিয়েছিল ধর্ম মন্ত্রণালয়।

এ বছর সরকারি-বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২৬ হাজার ৫০৮ বাংলাদেশি হজে যাচ্ছেন। আর ৫৯৮টি এজেন্সি এবার হজ পরিচালনা করছে।