মাত্র ১৪ হাজার টাকায় দেশে ফিরবে মালয়েশিয়ার অবৈধ বাংলাদেশীরা

প্রিন্ট

কোন ধরনের হয়রানি ও জেল-জরিমানা ছাড়াই মাত্র ১৪ হাজার ৩০০ টাকায় মালয়েশিয়ায় অবস্থিত অবৈধ বাংলাদেশি অভিবাসীরা দেশে ফিরতে পারবেন। এরই মধ্যে দেশটি সরকার ‘ব্যাক ফর গুড’ নামে নতুন এক কর্মসূচী চালু করেছে। আগামী ১ আগস্ট থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই কর্মসূচীর আওতায় সেখান থেকে অবৈধ বাংলাদেশীরা দেশে ফিরতে পারবেন।

মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ হাইকমিশন জানিয়েছে, অবৈধ ভাবে যারা মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করেছে বা যারা ভিসা ছাড়াই মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করেছেন অথবা যাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে, তারা এই কর্মসূচীর আওতায় দেশে ফেরার সুযোগ পাবেন।

দেশে ফিরতে অবৈধ প্রবাসীতের মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশনে পাসপোর্ট বা ট্রাভেল ডকুমেন্ট এবং প্লেন টিকেটসহ আবেদন করতে হবে। আবেদনপত্রের সঙ্গে মালয়েশিয়া সরকারকে ফি হিসেবে দিতে হবে ৭০০ রিঙ্গিত (১৪ হাজার ৩০০ টাকা)। আবেদনপত্র জমা দেয়ার পর মালয়েশিয়া সরকার অনুমতিপত্র দেবে। সেই অনুমতিপত্র পাওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যেই তাদের দেশে ফিরতে হবে। মালয়েশিয়ার সাবা, সারওয়াক ও লাবুয়ান প্রদেশ ছাড়া অন্য সব প্রদেশে থাকা অবৈধ বাংলাদেশীরা এই সুযোগ নিতে পারবেন।

এর আগে অবৈধভাবে দেশটিতে অবস্থান করা বাংলাদেশীদের দেশে ফেরার জন্য মালয়েশিয়া সরকারকে ৩১০০ রিঙ্গিত দিতে হতো। সময় লাগত দুই সপ্তাহ। তবে এবার ‘ব্যাক ফর গুড’ কর্মসূচীর আওতায় আবেদনের পর অনুমতিপত্র পেতে সময় লাগবে মাত্র একদিন।

মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রথম সচিব হেদায়েতুল ইসলাম মন্ডল জানিয়েছেন, মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত অবৈধ বাংলাদেশীদের কোন ধরনের হয়রানি ও জেল-জরিমানা ছাড়া নিজ দেশে ফেরাতে দেশটির কর্তৃপক্ষের সঙ্গে হাইকমিশন আলোচনা চালিয়ে আসছিল। সেই আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতেই বাংলাদেশে মালয়েশিয়া সরকার এই কর্মসূচী নিয়েছে। এর মধ্য দিয়ে অবৈধ বাংলাদেশীরা সহজেই দেশে ফিরতে পারবেন।