চকটদার রং ফর্সাকারী পণ্য থেকে সাবধান

প্রিন্ট

শরীরের রং ফর্সাকারী ক্রিমের চোখ ধাঁধানো বিজ্ঞাপন দেখে আকৃষ্ট হবেন না। রং ফর্সাকারী পণ্যগুলো সম্পর্কে এমনো বলা হয়, মাত্র ৩০/৪০ টাকায় ৭ দিনে রং উজ্জ্বল হয়ে যাবে! কিন্তু আপনি ভাবতে পারবেন না এসব পণ্য বা ক্রিমের নামে দেহে কী বিষ ঢুকিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এই পণ্য শুধু ব্যবহারকারীর শরীরের জন্যই নয়, গর্ভস্থ শিশু বা ভ্রƒণের জন্যও ক্ষতিকর।

এ বিষয়ে চর্ম বিশেষজ্ঞ ডা. তাসনিম তামান্না হক বলেন, গবেষণায় দেখা গেছে, শরীরের রং ফর্সাকারী বেশির ভাগ ক্রিমগুলোর একটা উপাদান হচ্ছে মার্কারি।  আর মার্কারি আছে এমন রং ফর্সাকারী ক্রিম ব্যবহারের ফলে ৪০০ জন শিশুর মাঝে ৪২ জনই ব্রেইন ড্যামেজ নিয়ে জন্মায়। গর্ভধারণকালীন মারাত্মক ক্ষতিকর আরও একটি উপকরণ থ্যালেট, যা বিভিন্ন সুগন্ধি প্রসাধনীতে পাওয়া যায়। এ উপকরণ গর্ভধারণকালীন ওজন অস্বাভাবিক বাড়িয়ে দেয়, ডায়াবেটিস হওয়ার ঝুঁকিও বহুগুণে বাড়ায়। এ ছাড়া এ ধরনের প্রডাক্টের কমন ঘটনা হলো, অটিস্টিক শিশুর জন্মদান। অটিজমের জন্য এসব পণ্যই দায়ী।

প্রতিকার বা করণীয় : ১. না বুঝে না জেনে গর্ভধারণকালে বা মাতৃদুগ্ধ প্রদানকালে কোনো কসমেটিকস বা স্কিনকেয়ার পণ্য ব্যবহার না করা। ২. কোনো হারবাল পণ্য ব্যবহারও একই ফল দিয়ে থাকে। পণ্য ব্যবহারের ক্ষেত্রে অবশ্যই স্কিন এক্সপার্টের পরামর্শ নেওয়া জরুরি।