শাহজালাল বিমানবন্দরে বসেছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির নতুন রাডার

প্রিন্ট

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বসছে নতুন সর্বাধুনিক প্রযুক্তির রাডার ও এয়ারট্রাফিক কন্ট্রোল সিস্টেম। দেশের বিমান খাতকে আরো নিরাপদ করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) জিটুজি পদ্ধতিতে নতুন রাডার ও এয়ারট্রাফিক কন্ট্রোল সিস্টেম কিনতে যাচ্ছে।

এ খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা বলছেন, শাহজালালের রাডার অনেক আগেই প্রতিস্থাপন করা উচিত ছিল। কারণ এ বর্তমানে ব্যবহৃত এ রাডার বিশ্বে এখন অচল। তাই সর্বাধুনিক প্রযুক্তির নতুন রাডার স্থাপন জরুরি হয়ে পড়েছে।

বেবিচক সূত্রে জানা গেছে, নতুন এ রাডার সরবরাহ করছে ফ্রান্সের প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান থ্যালেস। ১৯৮০ সালে যে রাডার ঢাকা বিমানবন্দরে বসানো হয়েছিল, সেটিও থ্যালেসই সরবরাহ করেছিল। থ্যালেস দেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ এর নির্মাতা।

দেশের প্রধান বিমানবন্দরটি থেকে প্রতিদিন ২০০ ফ্লাইট ওঠানামা করে থাকে। আকাশপথে যাত্রী সংখ্যা বাড়ার কারণে দিনে দিনে ফ্লাইট সংখ্যাও বাড়ছে।

নাম না প্রকাশের শর্তে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের এক কর্মকর্তা বলেন, বর্তমান রাডার সিস্টেমটি ঠিকমতো কাজ করে না। যে কারণে এয়ারট্রাফিক সঠিকভাবে ম্যানেজ করা যায় না। মাঝে মাঝে এটি নিরবিচ্ছিন্নভাবে এয়ারট্রাফিক শনাক্ত করতে ব্যর্থ হয়।