এ বছরই ভয়েস ওভার এলটিই (ভোল্টি) চালু করবে রবি

প্রিন্ট

 ‘জ্বলে উঠুন আপন শক্তিতে’ স্লোগানকে সামনে রেখে ডিজিটাল বাংলাদেশের আলো জ্বালাতে রবি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। রবি আজিয়াটা লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মাহতাব উদ্দিন আহমেদ বলেন, গ্রাহকবান্ধব কোম্পানি হিসেবে যুগের চাহিদা অনুযায়ী আপনাদের ক্রিস্টাল ক্লিয়ার ভয়েস কলের অভিজ্ঞতা দিতে এ বছরই ভয়েস ওভার এলটিই বা ভোল্টি প্রযুক্তি চালু করতে যাচিছ।

চট্রগ্রামে হোটেল রেডিসন ব্লু’তে গতকাল শনিবার রাতে এক অনুষ্ঠিত তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ডিজিটাল সেবা প্রদানে চট্টগ্রামে রবি অন্যান্য প্রতিযোগীদের তুলনায় কতোটা এগিয়ে আছে তার ছোট কিছু পরিসংখ্যান আমরা তুলে ধরতে চাই। চট্টগ্রামে মার্কেট লিডার থেকে রবির নেটওয়ার্ক ৩০ শতাংশ বেশি বিস্তৃত। চট্টগ্রাম শহরের প্রতি বর্গকিলোমিটার এলাকায় যেখানে রবির ৪টি সাইট আছে, সেখানে অন্যদের তিনটি সাইটও নেই। শীর্ষ ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান হিসেবে চট্টগ্রাম শহরের ৯৪ শতাংশ এলাকা রবির ৪জি/৩জি কভারেজের আওতায় আছে।

এরপরও কিছু কিছু ক্ষেত্রে গ্রাহকরা নেটওয়ার্ক সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন। কারণ টেলিযোগাযোগ একটি ওয়্যারলেস প্রযুক্তির সেবা। তরঙ্গের স্বল্পতা, নতুন সাইট করার জায়গা না পাওয়াসহ নানা কারণে অনেক সময় সর্বোচ্চ সেবা প্রদানে আমাদের কিছু সমস্যায় পড়তে হয়। ২০২০ সালে চট্টগ্রাম শহরে রবির ৪জি সাইটের সংখ্যা আরও ২০ শতাংশ এবং পুরো চট্টগ্রাম বিভাগে এ সংখ্যা আরও ৬০ শতাংশ বৃদ্ধির পরিকল্পনা নিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। শুধু তাই নয়, আপনাদের ক্রিস্টাল ক্লিয়ার ভয়েস কলের অভিজ্ঞতা দিতে এ বছরই আমরা ভয়েস ওভার এলটিই বা ভোল্টি প্রযুক্তি চালু করতে যাচিছ।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, রবির চিফ এন্টারপ্রাইজ বিজনেস অফিসার আদিল হোসেন নোবেল ও চিফ কমার্শিয়াল অফিসার শিহাব আহমেদ। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চিফ করপোরেট এন্ড রেগুলেটরি অফিসার শাহেদ আলম, চিফ হিউম্যান রির্সোস অফিসার ফয়সাল ইমতিয়াজ খান ও এঙটারন্যাল কমিউনিকেশন অফিসার আশিকুর রহমান। পরে সাংস্কৃতিক আয়োজনের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠান শেষ হয়।

শেয়ার করুন