অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড এগিয়ে নিতে স্কুল ব্যাংকিং অতুলনীয়

0
328

প্রিন্ট
স্কুল ব্যাংকিং হলো ছেলে-মেয়েদেরকে অর্থব্যবস্থাপনা ও সঞ্চয় করার মনোভাব এবং অভ্যাস গড়ে তোলার প্রবণতা । স্কুল ব্যাংকিং পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে প্রচলিত আছে। অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ডসহ বিভিন্ন দেশে স্কুল ব্যাংকিং একটি জনপ্রিয় সঞ্চয় বৃদ্ধির উদ্যোগ । স্কুলের কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদেরকে খরচ কমানোর মাধ্যমে সঞ্চয় করার অভ্যাস গড়ে তোলার ভিত্তিতে এ ধরনের ব্যাংকিং এর কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এই স্কুল ব্যাংকিং হিসাব থেকে পরবর্তীতে বড় ধরনের আমানত সঞ্চিত হয়, যা থেকে বাড়ি, গাড়ি, দোকান, ব্যবসা-বাণিজ্যে বিনিয়োগ এবং উচ্চশিক্ষার খরচ মেটানো সম্ভব হয়।

স্কুল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড আরও এক ধাপ এগিয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান

বাংলাদেশ ব্যাংক সিলেট অফিসের সম্মেলন কক্ষে গত শনিবার রাতে  অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘এ কর্মসূচি গ্রহণের ফলে স্কুলের শিক্ষার্থীরা এখন নিজ উদ্যোগে ব্যাংকে হিসাব খুলতে ও ব্যাংকের বিভিন্ন সেবা সম্পর্কে জানতে পারছেন। ফলে ছোট বয়স থেকেই তাদের মধ্যে সঞ্চয়ের প্রবণতা গড়ে উঠবে।

ড. আতিউর রহমান বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক আর্থিক শিক্ষা প্রসারে নানা ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করতে যাচ্ছে, তিনি আরো বলেন আর্থিক শিক্ষার প্রসার এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক প্রবৃদ্ধি অর্জনের লক্ষ্যে দেশের বৃহত্তর জনগোষ্ঠীকে ব্যাংকিং সেবার আওতায় আনার চেষ্টা চলছে।’

বাংলাদেশ ব্যাংকের গ্রিন ব্যাংকিং ও সিএসআর বিভাগের মহাব্যবস্থাপক খুরশেদ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পূবালী ব্যাংকের এমডি হেলাল আহমদ চৌধুরী ও বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ম. মাহফুজুর রহমান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ব্যাংক সিলেট শাখার মহাব্যবস্থাপক সুলতান আহাম্মদ।

মতবিনিময় অনুষ্ঠানে সিলেট বিভাগের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও স্থানীয় বিভিন্ন ব্যাংক প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

প্রসঙ্গত, স্কুলের শিক্ষার্থীদের ব্যাংকিং সুবিধা ও তথ্যপ্রযুক্তিগত ব্যাংকিং সেবার সঙ্গে পরিচয় ঘটনোর লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের উদ্যোগে ও নিদের্শনায় ২০১৩ সাল থেকে বাংলাদেশে স্কুল ব্যাংকিং কাযর্ক্রম শুরু হয়। এখন পযর্ন্ত ৫৬টি তফসিলি ব্যাংক এ কাজ করে আসছে। বাংলাদেশ অথৈর্নতিক সমীক্ষা-২০১৮ অনুসারে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ পযর্ন্ত সবের্মাট ১৪,৫৩,৯৩৬ টি স্কুল ব্যাংকিং হিসাব খোলা হয়েছে যার বিপরীতে মোট ১,৩৬২.৯৬ কোটি টাকা জমা হয়েছে।