দৃষ্টিশক্তি রক্ষায় চোখের যত্ন

0
206
প্রিন্ট

মানব জীবনে চোখ একটি অমূল্য সম্পদ তাই চোখের যত্ন নেয়া খুবই প্রয়োজন। চোখের যত্ন না নিলে ধীরে ধীরে দৃষ্টিশক্তি কমা সহ নানা ধরনের সমস্যা হতে পাড়ে। ধূলা-বালি ও জীবানু থেকে চোখকে রক্ষা করুন। প্রতিদিন কাজের ফাঁকে খানিকটা সময় চোখ বন্ধ করে রাখুন। এতে আপনার চোখ স্বস্তি পাবে। যারা কম্পিউটারে কাজ করেন একটানা মনিটরে তাকিয়ে না থেকে ঘন ঘন চোখের পাতা ফেলুন, এবং কাজের ফাঁকে মাঝে মাঝে মনিটর থেকে চোখ সরিয়ে নিন। চোখের উপর পতিত মনিটরের আলো থেকে চোখ খানিকটা আরাম দিতে মনিটরে গ্লাস প্রটেকটর ব্যবহার করুণ। প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে চোখে ঠাণ্ডা পানির ঝাপটা দিন।

সূর্যের ক্ষতিকর আলট্রাভায়োলেট রশ্মি থেকে চোখকে রক্ষা করে এমন সানগ্লাস ব্যবহার করতে পারেন। দৈনিক সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুমান। চোখের স্বাস্থ্যের সাথে ঘুমের বেশ যোগ আছে। তাই পর্যাপ্ত ঘুম প্রয়োজন। সবুজ মাঠ, সবুজ পাতা, সবুজ গাছপালাসহ নীল আকাশের দিকে কিছু সময় দৃষ্টিপাত করুন। এটা চোখকে সতেজ বানাতে সহায়ক।

এছাড়া দৃষ্টি রক্ষায় বিভিন্ন শাক-সবজি খেতে পারেন:
শাক-সবজিতে ভিটামিন সি, বিটা ক্যারোটিন, প্রচুর পরিমাণে লুটেইন এবং জিয়াক্সানথিন আছে। এছাড়া প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন রয়েছে যেটি ক্ষতিকারক নীল আলোর তীব্রতা ৪০-৯০ শতাংশ কমিয়ে ফেলে। এর ফলে সূর্য থেকে আসা সূর্যের অতি বেগুনী রশ্মি থেকে চোখকে বাঁচায়। তাই এই শাক-সবজি আপনি আপনার প্রতিদিনের খাবার মেন্যুতে রাখতে পারেন।

গাজর খেতে পারেন:
গাজরে বিদ্যমান থাকা বিটা ক্যারোটিন এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্টে চোখের ম্যাকুলার কমে যাওয়া এবং ছানি পড়া প্রতিরোধ করে। গাজর খেলে চোখে কম দেখা সংক্রান্ত কোনো জটিলতা দূর হয়ে যায়। এই সবজিটি আপনি সালাদের সাথে বা বিভিন্ন সবজির সাথে রান্না করে খেতে পারেন। তবে কাঁচা খেলে বেশি উপকার পাওয়া যাবে।