কাঁচা মরিচে স্বাস্থ্যের উপকারিতা

কাঁচা মরিচ সাধারণত কাঁচা কিংবা রান্নায় খাওয়া হয়। এতে আছে ভিটামিন-এ, সি, সি-৬, আয়রন, পটাসিয়াম এবং খুবই সামান্য পরিমাণে প্রোটিন ও কার্বোহাইড্রেট। ঝাল স্বাদের সবজিগুলোতে থাকে বিটা-ক্যারোটিন ও আলফা-ক্যারোটিন, বিটা-ক্রিপ্টোজ্যানথিন ও লুটেইনজিয়াজ্যানথিন ইত্যাদি উপাদান। এই উপাদানগুলো মুখে লালা আনে। ফলে খেতে মজা লাগে।

এছাড়াও এগুলো ত্বক ও স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। চলুন দেখে নেওয়া যাক কাঁচা মরিচে স্বাস্থ্যের উপকারিতাগুলো-

– গরমকালে কাঁচা মরিচ খেলে ঘামের মাধ্যমে শরীর ঠান্ডা থাকে।

– প্রতিদিন একটি করে কাঁচা মরিচ খেলে রক্ত জমাট বাঁধার ঝুঁকি কমে যায়।

– নিয়মিত কাঁচা মরিচ খেলে হৃৎপিণ্ডের বিভিন্ন সমস্যা কমে যায়।

– কাঁচা মরিচ মেটাবলিজম বাড়িয়ে ক্যালরি পোড়াতে সহায়তা করে।

– কাঁচা মরিচে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট বিটা-ক্যারোটিন আছে যা কার্ডিওভাস্কুলার সিস্টেমকে কার্যক্ষম রাখে।

– নিয়মিত কাঁচা মরিচ খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। কাঁচা মরিচ রক্তের কোলেস্টেরল কমায়।

– কাঁচা মরিচে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-সি আছে যা মাড়ি ও চুলের সুরক্ষা করে।

– নিয়মিত কাঁচা মরিচ খেলে নার্ভের বিভিন্ন সমস্যা কমে।

– প্রতিদিন খাবার তালিকায় অন্তত একটি করে কাঁচামরিচ রাখলে ত্বকে সহজে বলিরেখা পড়ে না।

– কাঁচা মরিচে আছে ভিটামিন-সি। তাই যে কোনো ধরণের কাটা-ছেঁড়া কিংবা ঘা শুকানোর জন্য কাঁচা মরিচ খুবই উপকারী। কাঁচা মরিচের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও ভিটামিন-সি শরীরকে জ্বর, সর্দি, কাশি ইত্যাদি থেকে রক্ষা করে।

image_printপ্রিন্ট করুন
শেয়ার করুনঃ